Geo Growing Bags

এখানে গাছ লাগানো ব্যাগ সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। যদি নদী-পুকুরের জন্য ব্যাগ নিতে চান, সে ক্ষেত্রে এখানে ক্লিক করুন।
Geo Growing Bags

অর্ডার পদ্ধতিঃ

১. ওয়েবসাইট থেকে অর্ডার করতে পারবেন। অর্ডার লিঙ্ক গুলো নিচে দেওয়া হয়েছে।
২. সরাসরি হোয়াটসঅ্যাপ মেসেঞ্জার বা ফোন করে অর্ডার করতে পারবেন। (এক্ষেত্রে অবশ্যই প্রোডাক্টের বিবরণ উল্লেখ করতে হবে, যেমনঃ কতো গ্যালন, কি রঙের, কত GSM) + কোন জেলায় নিবেন।

ডেলিভারি পদ্ধতিঃ

সাধারণত ২ থেকে ৭ দিনের মধ্যে আমরা ডেলিভারি দিয়ে থাকি।
আমাদের ডেলিভারি ২ ভাবে হয়ে থাকে।
১. অনলাইন কুরিয়ার এর মাধ্যমে ডেলিভারি। এক্ষেত্রে প্রোডাক্ট হাতে পাবার পর টাকা পরিশোধ করতে পারবেন। উপজেলা ও এর আশে পাশে বাসা পর্যন্ত পৌছে দেওয়া হয়।
২. অফিস থেকে ডেলিভারি। এক্ষেত্রে প্রোডাক্ট অর্ডার করার সময় Pickup from office সিলেক্ট করতে হবে। প্রোডাক্ট বানানো হয়ে গেলে আপনাকে অফিস থেকে ফোন দেওয়া হবে। এর পর অফিস থেকে প্রোডাক্ট নিয়ে যেতে পারবেন।  5th Floor, 819/1, West Shewrapara , Mirpur, Dhaka ( Above the leading Agrani Bank )

পণ্য পরিবর্তন ও ফেরতঃ

১. পরিবর্তনঃ- কেবলমাত্র ১ থেকে ৩০ গ্যালন পণ্যগুলো পরিবর্তন করা যাবে। এর চেয়ে বড়ো সাইজের ব্যাগ কোনোভাবেই পরিবর্তন করা যাবে না।  ছাদ-বাগানের জন্যে এর চেয়ে বড়ো ব্যাগের প্রয়োজন হয়না। ব্লাক কালারের ব্যাগ গুলো পরিবর্তন করা যাবে না । উল্লেখ্য যে, ব্লাক কালারের ব্যাগ অনেক পাতলা ও লো কোয়ালিটি হয়ে থাকে।
২. ফেরতঃ- পণ্যের কোনো সমস্যা থাকলে (সেলাই খুলে যাওয়া, ফেটে যাওয়া ইত্যাদি) তা পরিবর্তন করা যাবে বা ফেরত পাঠাতে পারবেন ।

GSM কি?

GSM = gram per square metre, মানে হচ্ছে প্রতি ১ মিটার স্কয়ারে যে মান পাওয়া যাবে তাকে GSM বলে। ১ মিটার স্কয়ার শীটের ওজন যদি ২৫০ গ্রাম হয় , তাহলে তাকে ২৫০ জি, এস , এম বলা হবে, ওজন যত বাড়বে এর থিকনেস ও ( মোটা ) তত বাড়বে। GSM যত বেশি নিবেন তত বেশি মোটা পাবেন এবং টেকসই বেশি হবে

নিচে কিছু GSM = আনুমানিক থিকনেস দেওয়া হলো
250GSM = 2.2mm
500GSM = 3.8mm
600GSM = 4.5mm

আনুমানিক স্থায়ীত্ত কাল।

২৫০ জি এস এম = ৩ থেকে ৮ বছর।
৫০০ জি এস এম = ১০ থেকে ১৫ বছর।
৬০০ জি এস এম = ১৫ থেকে ২০ বছর।

পরিবেশ বান্ধব ছাদ কৃষি পট ব্যবহার করার উপকারিতা-

🌲 ৫০০ ও ৬০০ জিএসএমের মোটা ফেব্রিক্স হওয়ার ব্যাগ ছেদ করে শিকড় বের হওয়ার কোন সম্ভাবনাই নেই। ব্লাক কালারের ব্যাগ গুলো ২৫০ জি এস এম হওয়ায় শিকড় বাহির হতে পারে।

🌲অতিরিক্ত তাপেও গ্রে কালার ব্যাগ গরম হয় না, যার ফলে মাটির ময়েশ্চার ঠিক থাকে।

🌲ছাদের অভার লোড প্রতিরোধ করতে জিও গ্রো ব্যাগ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

🌲গ্রে কালার ব্যাগের স্থায়িত্ব কাল ১০–২০ বছর।

🌲ব্লাক কালার ব্যাগের স্থায়িত্ব কাল ৩–৮ বছর।

🌲ফাইবারের অসংখ্য ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ছিদ্র দিয়ে অক্সিজেন সরবারহ হয় এবং অতিরিক্ত পানিটাও ব্যালেন্স হয়ে বের হয়ে যায়।।যার কারণে উৎপাদন ক্ষমতা দ্বিগুণ হয় এবং মশা জন্মানোর কোন ভয় থাকে না।

🌲প্রচন্ড রকমের রোদ অথবা বৃষ্টিতে কোন প্রকারের ক্ষতি হয়ার সম্ভাবনা নেই।কারণ উপকূলীয় অঞ্চলগুলোতে জিও ব্যাগ প্রচন্ড রকমের প্রাকৃতিক প্রতিকূল অবস্থাতেও সুন্দর ভাবে ব্যালেন্স করে নেয়।

🌲মাটির স্বাস্থ্য ভালো থাকে এবং ব্যাগের মাটি পরিবর্তনের ঝামেলা নেই।

🌲ব্যাগের দুই পাশে সরাসরি মোটা ফেব্রিক্স হাতল হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে,যা টেনে ছেঁড়া একেবারেই অসম্ভব। শুধুমাত্র কাটা ছাড়া এর হাতল ছিঁড়বে না।

🌲স্থানান্তরের জন্য সবচেয়ে বেশি সুবিধাজনক অফ হুয়াইট ও গ্রে কালার ব্যাগ।

সাধারন ড্রাম ও জিও ব্যাগের মধ্যে পার্থক্যঃ

১. এতে পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা খুবই ভালো হয়। ড্রামে ছিদ্র করতে হয় তার উপর টবের টুকরা দিতে হয়, তার উপর বালি দিতে হয়। তারপরেও অনেক সময় পানি বেশি হয়ে গেলে গাছের শিকড় পচে যায়। জিও ব্যাগে এগুলোর কোন ঝামেলা নেই। সরাসরি মাটি দিয়ে গাছ লাগিয়ে ফেলুন। পানি বেশি হলেও শিকড় পচে যাওয়ার সম্ভাবনা নাই।
২. জিও ব্যাগের ভেতর দিয়ে বাতাস চলাচল করে। ড্রামের ভেতর দিয়ে বাতাস চলাচল করতে পারে না।
৩. ব্যবহার করার পরেও জিও ব্যাগ ভাঁজ করে রেখে দেওয়া যায়। দশটি জিও ব্যাগ ভাঁজ করে রাখলে খুব অল্প জায়গা নিবে। কিন্তু ড্রাম ভাঁজ করা যাবে না।

ডেলিভারি চার্জ কত?

ঢাকার ভিতরে ডেলিভারি চার্জ ৫০০গ্রাম পর্যন্ত ৭০ টাকা, ১ কেজি হলে ৮০ টাকা, এর পর প্রতি কেজিতে ২০ টাকা করে যোগ হবে।
ঢাকার বাহিরে ডেলিভারি চার্জ ৫০০গ্রাম পর্যন্ত ১১০ টাকা, ১ কেজি হলে ১৩০ টাকা, এর পর প্রতি কেজিতে ২৫ টাকা করে যোগ হবে।
হোম ডেলিভারি হবে

গ্রে কালার ও ব্লাক কালারের ব্যাগের মধ্যে পার্থক্যঃ

* গ্রে কালার ব্যাগের স্থায়িত্ব ১০ থেকে ২০ বছর।
ব্লাক কালার ব্যাগের স্থায়িত্ব ৩ থেকে ৮ বছর ( ব্লাক, মেরুন, গ্রিন )
* গ্রে কালার ফেব্রিকের পুরুত্ব ৩.৮ ও ৪.৫ মিলিমিটার।
ব্লাক কালার ফেব্রিকের পুরুত্ব ২.২ মিলিমিটার।
* গ্রে কালার ব্যাগে তাপ শোষণ ক্ষমতা কম হওয়ায় গাছের কোন প্রকার ক্ষতি হয় না।
ব্লাক কালারের ব্যাগ তাপ শোষণ ক্ষমতা বেশি হওয়ায় গাছের বিভিন্ন প্রকার ক্ষতি হয়ে থাকে।
* গ্রে কালার ফেব্রিকের পুরুত্ব ৩.৮ ও ৪.৫মিলিমিটার হওয়ার কারনে গাছের শিকর বাহির হতে পারে না , ফলে ছাদের কোন ক্ষতি হয় না।
ব্লাক কালার ফেব্রিকের পুরুত্ব ২.২ মিলিমিটার হওয়ার করনে গাছের শিকর বাহির হতে পারে , ফলে ছাদের অনেক ক্ষতি হয়।
Geo Grow Bag Price List
Geo Grow Bag Price List

গাছ লাগানো ব্যাগ গুলোর সাইজ জানতে নিচের ভিডিও টি দেখতে পারেন।